ভিপিএন এবং প্রক্সি সার্ভার কোনটা সব থেকে বেশী সিকিউরড দেখুন।

ভিপিএন এবং প্রক্সি সার্ভার কোনটা সব থেকে বেশী সিকিউরড দেখুন।

আপনি যদি একজন ইন্টারনেট ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই ভিপিএন এর নাম তো শুনেছেন। আর আমি ধরেও নিচ্ছি আপনি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী কারণ আপনি যদি ইন্টারনেট ব্যবহার না করতেন তাহলে অবশ্যই ThugsofBD এ প্রবেশ করতে সক্ষম হতে পারতেন না।

 ভিপিএন এবং প্রক্সি সার্ভার কোনটা সব থেকে বেশী সিকিউরড দেখুন।
 ভিপিএন এবং প্রক্সি সার্ভার কোনটা সব থেকে বেশী সিকিউরড দেখুন।

আমরা যারা ইন্টারনেট ব্যবহারকারী রয়েছি তারা সকলেই চাই নিজের সিকিউরিটি ঠিক রেখে ইন্টারনেট এ চলাচল করতে, এই জন্য আমরা অনেকেই ভিপিএন অথবা প্রক্সি এর সাহায্য নিয়ে থাকী। আবার মনে করুন সরকারী প্রয়োজন এর জন্য সরকার কোনো সোশ্যাল নেটওয়ার্ক ওয়েবসাইট ব্লক করলে ওইগুলো ব্যবহার করার জন্য আমরা অনেকেই ভিপিএন বা প্রক্সি ব্যবহার করি।

অপ্রিয় সত্যি কথা রয়েছে কিছু, এমন অনেক মানুষ রয়েছেন যারা এই সকল ভিপিএন অথবা প্রক্সি ব্যবহার করার কথা বাদ থাক তারা এই ভিপিএন বা প্রক্সি এর নামও শুনে নাই কখনো। ইন্টারনেট এমন এক মাধ্যম এইখানে রয়েছে অগণিত মানুষ হতে পারে কেউ ভালো কাজ করে বা হতে পারে কেউ খারাপ কাজ করে এবং অনুসন্ধান করলে দেখা যাবে বেশী ভাগ মানুষই সাধারণ ইন্টারনেট ব্যবহারকারী মাত্র।

আমাদের ভার্চুয়াল লাইফে নিজেকে নিরাপদ এ রাখতে চাইলে আমাদের প্রয়োজন নিজের ডাটাবেজ এবং নিজের ডিভাইসকে সিকিউরিটি দেওয়া, প্রযুক্তির বেশ দারুণ উন্নয়ন হওয়ায় আমরা সকলেই বেশ আপডেট হয়েছি। অনুসন্ধান করলে দেখা যাবে বেশী ভাগ মানুষ নিজেকে নিরাপদ রাখার জন্য বা বিভিন্ন ওয়েবসাইট এ নিজের পরিচয় গোপন রাখার জন্য ভিপিএন বা প্রক্সি ব্যবহার করেন। কিন্তু অর্ধেক এর বেশী মানুষ জানে না যে ভিপিএন এবং প্রক্সি এর মধ্যে পার্থক্য কী।
আপনি যদি ভিপিএন ব্যবহার করেন তাহলে আপনি যে সার্ভারটিতে কানেক্ট করবেন, তার আগে আপনার ডিভাইসটি ভিপিএন প্রোভাইডারের নিজের সার্ভারে আগে কানেক্ট হবে এবং তারপরেই আপনার ইচ্ছাকৃত ওয়েবসাইট এ প্রবেশ করানো হবে।

এই রকম করার ফলে আপনার আইপি এড্রেস সম্পূর্ণ গোপন হয়ে থাকবে এবং ওয়েব সার্ভারটির কাছে যে রিকুয়েস্ট যাবে ওটা আগে আপনার ভিপিএন প্রোভাইডারের আইপি এড্রেস থেকে যাবে এর কারণে আপনার নিজের রিয়েল আইপি এড্রেস নিরাপদ এবং গোপন থাকবে, সহজে কেউ আপনাকে খুঁজে পাবে না।

মূল কথা হলো আমরা ভিপিএন ব্যবহার করলে সম্পূর্ণ ডিভাইসটি ভিপিএন প্রোভাইডারের তৈরি একটি এনক্রিপটেড সুড়ঙ্গ পথের মধ্যে দিয়ে ইন্টারনেটে সব ধরনের রিকুয়েস্ট যাওয়া আসা করে, সেখানে ভিপিএন প্রোভাইডার এবং আপনি ছাড়া আর কেউই আপনার রিয়েল আইপি এবং লোকেশন সম্পর্কে জানতে পারেনা।

এই সকল সুবিধার কারণে আপনি যেকোনো দেশ এর ব্লক করা ওয়েবসাইট এ প্রবেশ করে নিজের ইচ্ছা মতো কাজ বা ইচ্ছা পূরণ করতে পারবেন এবং আপনার পরিচয় গোপন রেখে ইন্টারনেট এ চলাচল করতে পারবেন।

প্রক্সি সার্ভার এবং ভিপিএন এর কাজ একদম বলতে গেলে একই রকমের হয়ে থাকে। প্রক্সি সার্ভার আপনার পছন্দনীয় ওয়েবসাইট এ গোপন ভাবে প্রবেশ করার রাস্তা তৈরি করে দিবে এবং এইভাবেই কাজ করতে থাকবে।

আপনার ডিভাইস থেকে ইন্টারনেট এ যাওয়া এবং আসার সব ধরনের রিকুয়েস্ট গুলো প্রথমে আপনার প্রক্সি সার্ভার এ আসবে এবং তারপরেই আপনার পছন্দনীয় সিলেক্টেড ওয়েবসাইট এ প্রবেশ করতে পারবে। এর কারণে ওয়েব সার্ভারটি ভেবে নেয় যে রিকুয়েস্ট গুলো প্রক্সি সার্ভার এর আইপি এড্রেস থেকে আসছে, আপনার রিয়েল আইপি এড্রেস থেকে না। আর এইখানেই সমাপ্ত হয় ভিপিএন এবং প্রক্সি সার্ভার এর একই কাজ এর নমুনা, এখন তাহলে অবশ্যই ভাবছেন ভিপিএন এবং প্রক্সি সার্ভার এর পার্থক্য কোথায়; আচ্ছা আমি যথেষ্ট বুঝিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছি।

ভিপিএন এবং প্রক্সি সার্ভার এর পার্থক্যঃ


ভিপিএন এবং প্রক্সি সার্ভার কীভাবে কাজ করে এবং কী ধরনের সিকিউরিটি আমাদের দিয়ে থাকে, তার মধ্যে যথেষ্ট বড় রকমের পার্থক্য রয়েছে।
সর্বপ্রথম কথা হলো ভিপিএন আপনার কানেকশনটিকে এনক্রিপ্ট করে একদম আপনার ডিভাইসের সিস্টেম থেকে যার কারণে আপনার ডেস্কটপ অথবা ল্যাপটপ এর সব অ্যাপস এবং সব সার্ভিস এবং সব রকমের ইনকামিং এবং আউটগোয়িং কানেকশন গুলো ভিপিএন সার্ভারের সাহায্যে এনক্রিপ্ট হয়ে যায়।

আপনি যদি প্রক্সি সার্ভার ব্যবহার করেন তাহলে কিন্তু প্রক্সি সার্ভার আপনার ডিভাইসের সিস্টেম থেকে কানেকশনকে এনক্রিপ্ট করেনা বা করতে পারে না। এইচটিটিপি প্রক্সি সার্ভার গুলোতে কোনো রকমের এনক্রিপশন বিষয় থাকে না। সব থেকে বেশী এইচটিটিপি প্রক্সি সার্ভার আপনারা ব্যবহার করেন যার নাম শুনেই বুঝতে পারছেন এই প্রক্সি সার্ভার একদম সিকিউরড না বা ব্যবহার যোগ্য না কারণ কানেকশনটিতে এনক্রিপশন বলে এই সকল প্রক্সি সার্ভার এ কিছু থাকে না।

মজার বিষয় হলো এইখানে প্রক্সি সার্ভার গুলো আপনার শুধু আইপি এড্রেসকে গোপন করছে কিন্তু আপনার কানেকশনটিকে কোনো সিকিউরিটি প্রদান করছে না যা আসলেই বেশ অদ্ভুত বিষয়। যেখানে কানেকশনটি যদি এনক্রিপ্টই না হয় শুধু আইপি এড্রেস গোপন করার জন্য প্রক্সি সার্ভার ব্যবহার করা একদম বোকামো ছাড়া আর কিছু না।

এতো সময় এইচটিটিপি নিয়ে কথা বললাম কিন্তু আপনি একটু অনুসন্ধান করলে দেখবেন এইচটিটিপিএস প্রক্সি সার্ভার রয়েছে যেগুলো আপনি ফ্রিতে ব্যবহার করতে পারবেন। কিন্তু যতোই প্রক্সি সার্ভার গুলো এইচটিটিপিএস হোক না কেনো অর্ধেক এর বেশী সার্ভার গুলো এইচটিটিপি কানেকশন ব্যবহার করে।

আপনি যদি প্রক্সি সার্ভার ব্যবহার করেন তাহলে আপনার কানেকশন আন-এনক্রিপ্টেড থাকবে কারণ আপনার কানেকশনই সিকিউরড না। অতএব আপনি যেকোনো রকমের সমস্যায় যখন তখন পড়ে যেতে পারেন। প্রক্সি সার্ভার চাইলেই আপনার কানেকশনকে যা ইচ্ছা তাই করতে পারে বিভিন্ন ক্ষতিকর কোডও ইনজেক্ট করে দিতে পারে আপনার কানেকশন এ, এর মানে হচ্ছে প্রক্সি সার্ভার আপনার কানেকশনকে ইচ্ছা মতো মোডিফাই করে নিতে পারবে।
Newer Posts Older Posts

Related posts